আজ : ০৭:৫৩, জুলাই ১৪ , ২০২০, ৩০ আষাঢ়, ১৪২৭
শিরোনাম :

দিরিলিস আরতুগুলের প্রশংসায় আফ্রিদি


আপডেট:০৮:১৯, মার্চ ৩১ , ২০১৯
photo

খেলাধুলা ডেস্ক: তুরস্কের টিভি সিরিজ সারা বিশ্বে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। বিশেষ করে মুসলিম বিশ্বে তুর্কি সিরিয়াল অপ্রতিদ্বন্দ্বী। সারা বিশ্বে দুই শতাধিক ভাষায় ডাবিং করে সম্প্রচারিত হচ্ছে এসব তুর্কি সিরিয়াল।তুরস্কের অন্যতম জনপ্রিয় সিরিজ দিরিলিস নিয়ে এবার টুইট করেছেন পাকিস্তানের জনপ্রিয় তারকা ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি।

শনিবার আফ্রিদি তার ভেরিফায়েড টুইটার পেজে এক টুইটবার্তায় বলেন, ‘তুর্কি সিরিজ ‘দিরিলিস আরতুগুল’ দেখছি। আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস ও ন্যায় বিচারের কারণে আরতুগুলের জীবনে বিজয় ও সফলতা আসে। হয়তোবা (মুসলমানদের)সেই সোনালী দিন আবারও আসবে।’প্রসঙ্গত, বিশ্বব্যাপী টিভি সিরিজ রফতানিতে বিশ্বে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরের (দ্বিতীয়) অবস্থানেই রয়েছে তুরস্ক।

বাংলাদেশে দিরিলিস আরতুগুল: খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মাছরাঙা টিভিতে ২ এপ্রিল ২০১৭ থেকে ‌দিরিলিস আরতুগ্রুল সিরিজ সম্প্রচার শুরু হয়। এই সিরিয়ালটি শুরু হওয়ার পর বাংলাদেশের বিভিন্ন শ্রেণির দর্শক মাছরাঙা টিভির প্রতি হুমড়ি খেয়ে পড়ে। এ সিরিজটি সম্প্রচারের পর থেকে তাদের টিআরপি অনেকাংশে বেড়ে গেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।ইতিমধ্যে প্রথম ও দ্বিতীয় সিজন দর্শকরা বাংলায় ডাবিং করা এ সিরিয়ালটি দেখেছেন। তৃতীয় সিজনের জন্য অপেক্ষা করছেন দর্শকরা।

ইউরোপে তুর্কি সিরিজের জনপ্রিয়তা
ইউরোপে তুর্কি চলচ্চিত্র র‌্যাংকিংয়ে প্রথম। আর তুরস্কের ৪৮ ভাগ মানুষই দেশীয় চলচ্চিত্র দেখে থাকেন। মধ্যপ্রাচ্য থেকে বলকান, পূর্ব ইউরোপ থেকে ল্যাটিন আমেরিকায় গত পাঁচ বছরে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে তুর্কি সিরিজ।

এছাড়াও বিশ্বব্যাপী আলোচিত ১৬ শতাব্দীর অটোমান সাম্রাজ্যের ঐতিহাসিক কাহিনী নিয়ে নির্মিত সিরিজ দ্য ম্যাগনিফিসেন্ট সেঞ্চুরি (বাংলাদেশে যা সুলতান সোলেমান হিসেবে প্রচারিত হচ্ছে) ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এটি তুরস্ক ও পশ্চিম ইউরোপের ৭০টি দেশে সম্প্রচারিত হচ্ছে। এ সিরিজটির দর্শক সংখ্যা ২৫ কোটিরও বেশি।



সাম্প্রতিক খবর

প্রতিদান চেয়না

photo প্রতিদান চেয়না শিহাবুজ্জামান কামাল: শিশু ভুমিষ্ট হওয়ার পর অজানা আতংকে চিৎকার করে কাঁদে। তখন একমাত্র গর্ভধারিণী মা অভয় দিয়ে তাকে বূকে জড়িয়ে ধরেন। সন্তানকে পরম আদর যতনে মানুষ করেন। কিন্তু কি জানো! একদিন সেই সন্তানই তাকে ভুলে যায়। আর এই পৃথিবীতে ভুলে যাওয়া মানুষের সংখ্যাই বেশি। জীবনে চলার পথে হাজার মানুষের সাথে পরিচয় হবে।প্রয়োজনে তারা পাশে আসবে। তোমাকে ভালোবাসবে। কিন্তু

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment