আজ : ০৭:৪৫, মে ২৫ , ২০১৮, ১১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫
শিরোনাম :

জিয়াউর রহমান খুনী, তার স্ত্রী খুনি, তার সন্তানও খুনী: যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভায় প্রধানমন্ত্রী


আপডেট:০৮:০৮, এপ্রিল ২১ , ২০১৮
photo

নিজস্ব প্রতিবেদক: লন্ডনে প্রধানমন্ত্রীকে দেয়া যুক্তরাজ্য ও ইউরোপ আওয়ামী লীগের দেয়া সংবর্ধনা সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দুই একটা লাফাংঙ্গা সাজাপ্রাপ্ত আসামী, আবার যে আসামীকে বিএনপির চেয়ারম্যান বানায়, আসামী ফিউজিটিভ, ফিউজিটিভ কিভাবে একটা দলের চেয়ারপারসন হয়? তাহলে দলটাতো একটা দেউলিয়া দল, দলের তো কিছু নাই। মনে হয় মাথা-মোতা কিছু নাই, সব দেউলিয়া। কাজেই এরা দেশের সর্বনাশ করতে চায়। সমানে দেশের প্রতি বদনাম। আর যুদ্ধাপরাধী যারা, যারা সাজাপ্রাপ্ত হয়েছে, এই তাদের ছেলেপুলেগুলো দুনীতি ককরে টাকা কামাই করেছে। জিয়াউর রহমান খুনী তার স্ত্রী খুনি তার সন্তানও খুনী। এই খুনীদের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করতে হবে।

স্থানীয় সময় বেলা একটায় ওয়েস্টমিনিস্টারে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের শুরুতে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন দলের নেতাকর্মীরা। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যুক্তরাজ্য ও ইউরোপ আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক সহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তার বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের মানুষ কী পেলো, কী খেলো তাতে বিএনপির কিছু যায়-আসে না। তাদের আসল কাজ মানুষের সম্পদ কেড়ে নিয়ে নিজেদের সম্পদশালী করা। দুর্নীতি না করলে শূণ্য থেকে অত দামী-দামী গাড়ি, দামী বাড়ি কীভাবে আসে, সেটাই বড় প্রশ্ন।

প্রবাসীদের অবদান সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নে প্রবাসীদের ভূমিকা অপরিসীম। আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার বিরুদ্ধে প্রবাসীরাই প্রথম বিদেশে আন্দোলন গড়ে তুলেছিলেন।

বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও তার ছেলে তারেক রহমানের সমালোচনা করে বলেন, ভাঙা স্যুটকেস কি জাদুর বাক্স হয়ে গিয়েছিলো? সেখান থেকে লঞ্চ এলো, ইন্ড্রাস্ট্রি বেরোলো, ব্যাংকের মালিক হলো, আর সেই ছেড়া গেঞ্জির থেকে ফ্রেঞ্চ স্টিফন বেরোলো, কত রঙ্গ তামাশা আমরা বাংলাদেশে দেখলাম। বাংলাদেশের মানুষ খাবার পায়, খাবার পায়না তার ঠিক ঠিকানা নেই, কিন্তু নিজেদের বিলাস-বেশ, সাজ পোশাক সেগুলো সব ঠিক ছিলো। খালেদা জিয়ার মুক্তি চাইলে বিএনপিকে আইনী প্রক্রিয়ায় যেতে হবে বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'অল্প সময়ের মধ্যে ১১ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়েছে বাংলাদেশ। এমন নজির পৃথিবীর আর কোনো দেশে নেই।'

২৫তম কমনওয়েলথ সম্মেলনে যোগ দিতে গত ১৭ এপ্রিল থেকে যুক্তরাজ্যে অবস্থান করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।



সাম্প্রতিক খবর

আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভেবে ভুয়া ফোনকলে ১৮ মিনিট কথোপকথন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

photo আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন একটি ভুয়া ফোনকলকে আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রীর ফোন ভেবে ১৮ মিনিট ধরে আন্তর্জাতিক বিষয়ে আলোচনা করেছেন। রাশিয়ার দুই প্র্যাঙ্ক ভিডিও নির্মাতা ওই ফোনকল করেছিলেন। বরিস জনসনের সঙ্গে হওয়া কথোপকথনের অডিও তারা প্রকাশ করে দিয়েছেন। যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে নেওয়া

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment