আজ : ০২:২৩, ডিসেম্বর ১১ , ২০১৮, ২৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫
শিরোনাম :

ব্রিটেনে ৭ই নভেম্বর থেকে বেনিফিট ক্যাপ বাস্তবায়ন শুরু : ক্ষতিগ্রস্থ হবে নিম্ন আয়ের পরিবার


লন্ডনে সপ্তাহে ৪৪২ পাউন্ড, লন্ডনের বাইরে ৩৮৫ পাউন্ড

আপডেট:০৬:৫৫, নভেম্বর ২ , ২০১৬
photo

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদ- আগামী সপ্তাহ থেকে নতুন বেনিফিট ক্যাপ বাস্তবায়ন শুরু হবে, যার ফলে ব্রিটেনের ৩০০,০০০ মতো শিশু আরো গরীব তথা মারাত্মক আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হবে, যাতে পরিবার প্রতি ১০০ পাউন্ড করে সপ্তাহে তারা হারাবেন- নতুন এক রিসার্চে এমন তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

সরকারের কাছে সেজন্য জরুরী ভিত্তিতে এই বেনিফিট ক্যাপ পূণর্বিবেচনার আহবান জানানো হয়েছে, না হলে অসংখ্য পরিবার ও শিশু আর্থিক ক্ষতি ও ঝুকির মুখে পড়বে।

গত বছর সাবেক চ্যান্সেলর জর্জ ওসবর্ন এই বেনিফিট ক্যাপের নীতি ঘোষণা করেছিলেন, যেখানে লন্ডনের ভিতরে একেবারে নীচের ক্যাপ ছিলো ২৩,০০০ পাউন্ড আয়, আর লন্ডনের বাইরে ছিলো ২০,০০০ পাউন্ড আয়, যা আগামী সোমবার আবশ্যিকভাবে থেকে কার্যকর হতে যাচ্ছে।

চার্টার্ড ইনস্টিটিউট অব হাউজিং ( সিআইএইচ) তাদের রিসার্চে অবগত হয়েছেন, নতুন বেনিফেট ক্যাপের ফলে হাজার হাজার পরিবার ক্ষতির সম্মুখীন শুধু নয়, তাদের অর্থনৈতিক দৈন্যদশা হবে, যার ফলে হোমলেস পরিবারের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে- অথচ বিগত টোরি কনফারেন্সে টেরেজা মে বলেছিলেন তিনি সকলের জন্য ফেয়ারার সোসাইটি তৈরি করতে চান- এমন ওয়াদা সত্যেও পরিবারগুলোর জন্য যে অসহনীয় বার্তা দরজায় কষাঘাত করছে, সেটা নিয়ে এখনি সরকারকে বিবেচনায় নিতে হবে।

সিআইএইচ এর চীফ টেরি আলাফাত বলেন, আমাদের রিসার্চের ফাইন্ডিংস নির্দেশ করছে, অসংখ্য পরিবার নিদারুন কষ্টের মধ্যে পড়বেন, আর তা থেকে পরিত্রানের জন্য অনেকেই অসুস্থ হয়ে বাচার পথ খুজবেন।

চাইল্ড প্রোভার্টি একশন গ্রুপের পলিসি ডিরেক্টর ইমরান হোসেইন বলেছেন, লওয়ার বেনিফিট ক্যাপ খুবই খারাপ যা শিশুদের উপর মারাত্মকভাবে প্রভাবান্বিত করে।

এক নজরে সিআইএইচ এর ফাইন্ডিংস-

০১) ১১৬,০০০ পরিবার যাদের ১-৪ জন সন্তান রয়েছে, তারা সরাসরি ক্ষতিগ্রস্থ হবেন, যা ইতোমধ্যেই ১০০০০০ পর্যন্ত বৃদ্ধি পেয়ে ২০,০০০ পরিবার ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন।

০২) ঐ পরিবার সমূহ সহ ৩১৯,০০০ শিশু ক্ষতিগ্রস্থ হবে

০৩) তিন বেড রুমের রেন্টেড প্রোপার্টিতে তিন সন্তান সহ পরিবার ৫০.৮০ পাউন্ড করে সপ্তাহে হ্রাস পাবে, লিডসের মতো শহরে হবে ১৫১.৫০ পাউন্ড করে সপ্তাহে কমবে

উল্লেখ্য ২০১৩ সাল থেকে চালু হওয়া বেনিফিট ক্যাপ বছরে ইনকাম ২৬,০০০ পাউন্ড পর্যন্ত বা সপ্তাহে ৫০০ পাউন্ড টোটাল বেনিফিট ক্যাপ করে ২০,০০০ পরিবার এর মধ্যে চালু হয়েছে।ব্রেক্সিটের পরে এই বর্তমান লওয়ার বেনিফিট ক্যাপ পরিবারগুলোর মধ্যে মারাত্মক ধবস এনে দিবে।

আগস্টে ডিপার্টম্যান্ট অব ওয়ার্ক এন্ড পেনশন বলেছিলো ২৪৪,০০০ পরিবার ও সন্তান এর ফলে ক্ষতিগ্রস্থ হবে, বা সপ্তাহে ৬০ পাউন্ড করে হারাবে। এখন দেখা যাচ্ছে সরকারের হিসেবের চাইতে অধিক সংখ্যক পরিবার ক্ষতিগ্রস্থ হবেন।

বছরে ২৬,০০০ পাউন্ড ইনকাম বা সপ্তাহে ৫০০পাউন্ড বেনিফিট ক্যাপের পরিবর্তে আগামী ৭ই নভেম্বর থেকে লন্ডনে ৪৪২ পাউন্ড সপ্তাহে ও লন্ডনের বাইরে ৩৮৫ পাউন্ড সপ্তাহে লওয়ার বেনিফিট ক্যাপ বাধ্যতামূলকভাবে কার্যকর হবে।

ডিপার্টম্যান্ট অব ওয়ার্ক এন্ড পেনশন এর মুখপাত্র বলেছেন, সিআইএইচ এর ফাইন্ডিংস ফিগার তাদের অজানা এবং তারা হিসেবের মধ্যে নেননি। তবে আরেকটু বাড়িয়ে জানিয়েছেন, লওয়ার বেনিফিট ক্যাপ কার্যকর হলেও এখনো লন্ডনে পরিবারের আয় ২১,০০০ পাউন্ড এবং ২৯,০০০ পাউন্ড সেলারির বিপরীতে বেনিফিট পেয়ে থাকেন।



সাম্প্রতিক খবর

মির্জা ফখরুলসহ প্রথম দিনেই জেলায় জেলায় ধানের শীষ গাড়িবহরে হামলা

photo ঢাকা সংবাদদাতা: একাদশ সংসদ নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার প্রথম দিনেই দেশের কয়েকটি জেলায় বিএনপির মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থীদের গাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। ভাঙচুর করা হয়েছে অনেকগুলো গাড়ি। মঙ্গলবার (১১ ডিসেম্বর) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত বেশ কয়েকটি জেলায় হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মির্জা আলমগীরের গাড়িবহরে হামলা বিএনপি চেয়ারপাসরনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment