আজ : ০৪:৫৫, জুলাই ১১ , ২০২০, ২৬ আষাঢ়, ১৪২৭
শিরোনাম :

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য জাতির সাথে নিষ্ঠুর রসিকতা : রিজভী


আপডেট:১০:০৮, জানুয়ারি ২০ , ২০১৯
photo

ঢাকা সংবাদদাতা: ‘জনগণ এবার স্বতঃস্ফুর্ভভাবে ভোট দিয়েছে’ বলে গতকাল শনিবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া বক্তব্যের কঠোর সমালোচনা করেছে বিএনপি। দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, এধরনের বক্তব্য নিষ্ঠুর রসিকতা ছাড়া আর কিছুই নয়। তিনি বলেন, ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানকে গতকাল গণতন্ত্র হত্যার উৎসবে পরিণত করা হয়েছে।

আজ রোববার সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন। নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনে দলের কেন্দ্রীয় নেতা শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, এবিএম মোশারফ হোসেন, অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম ্আজাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

রিজভী বলেন, গতকাল ক্ষমতাসীনরা যখন বাংলাদেশে ভোটাধিকার হরণের পর উৎসব করছেন তখন জাতিসঙ্ঘ মহাসচিবের বক্তব্য নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে শিরোনাম ছিল- বাংলাদেশে নির্বাচন অবশ্যই সঠিক ছিল না। বিবিসির হেড লাইন ছিল ‘গণতন্ত্র থেকে ছিটকে পড়েছে বাংলাদেশ’। এছাড়া বিশ^ মিডিয়ায় বলা হয়েছে- বাংলাদেশের নির্বাচন ছিল বিতর্কিত ও প্রশ্নবিদ্ধ। এই নির্বাচনকে সিএনএন বলেছে প্রহসন, এই বিতর্কিত নির্বাচনের মাধ্যমে বিপজ্জনক যুগে প্রবেশ করেছে বাংলাদেশ। পৃথিবীর খ্যাতনামা স্কলাররা বাংলাদেশের ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনকে ইতিহাসের নিকৃষ্টতম নির্বাচন বলে অভিহিত করেছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একজন প্রখ্যাত স্কলার বলেছেন- বাংলাদেশের ক্ষমতাসীনগোষ্ঠী নির্বাচনের ফলাফল চুরি করেছে। ভোট চুরির সব নোংরা কৌশল প্রয়োগ করে শেখ হাসিনা এবং তার দল ৯৭.৬৬ শতাংশ ফলাফল নিজের দলের জন্য ভাগিয়ে নিয়েছেন।

বিএনপির এই শীর্ষ নেতা বলেন, মহা ভোট ডাকাতির মহা কেলেঙ্কারী আড়াল করতে এ সরকার বৈধতা পেতে এখন আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দেনদরবার শুরু করেছে। কিন্তু জনগণের ম্যান্ডেট ছাড়া কোনো সরকার কখনোই টিকতে পারে না, ভয় দেখিয়েও বেশি দিন টেকা যায় না। ম্যাকিয়াভেলির নীতি অবলম্বন করে ক্ষমতায় থাকার দিন শেষ হয়ে গেছে।

দেশের বিভিন্ন স্থানে নারী নির্যাতনের নিন্দা জানিয়ে রিজভী আরো বলেন, ভুয়া ভোটের মিথ্যা জয়ে আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা পৈশাচিক উল্লাসে মেতে উঠেছে। কুৎসিত অপকর্ম করতে তারা এখন বেপরোয়া। এরা বিরোধী দলের সহায়-সম্পত্তি দখল ও লুটের পাশাপাশি নারীদের ওপর হানাদার বাহিনীর কায়দায় হিং¯্র লালসায় ঝাঁপিয়ে পড়ছে। এদের প্রাত্যহিক জীবন থেকে সৌজন্যবোধ ও হিতাহিত জ্ঞান লোপ পেয়েছে। এরা শকুনির দৃষ্টি নিয়ে সারাদেশে নির্ভয়ে শিকার করে বেড়াচ্ছে। এদের হাত থেকে মা-বোন-শিশু কেউই রেহাই পাচ্ছে না। মিথ্যা জয়ের আনন্দের আতিশয্যে এদের বিভৎস রূপ দেখে দেশবাসী ভীত-শঙ্কিত। এদের নিষ্ঠুরতায় বাংলাদেশ এখন আদিম অন্ধকার যুগে প্রবেশ করেছে।

তিনি বলেন, ধানের শীষে ভোট দেয়ার অপরাধে নির্যাতিতা পারুল বেগমের আহাজারী ও গোঙানী থামতে না থামতেই নোয়াখালীর কবিরহাটে ঘরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে মা ও ছেলে-মেয়েদের জিম্মি করে তিন সন্তানের মা-কে স্থানীয় যুবলীগের কর্মীরা গণধর্ষণ করেছে। ধর্ষিতার স্বামী আবুল হোসেন ধানসিঁড়ি ইউনিয়ন যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তাকে নির্বাচনের আগে দুটি মিথ্যা মামলায় আটক করে কারাগারে বন্দী করে রাখা হয়েছে, অথচ এফআইআর-এ তার নাম পর্যন্ত ছিল না। বন্দী স্বামীর স্ত্রীকে এভাবে ক্ষমতাসীন যুব সংগঠনের নেতাকর্মীদের দ্বারা গণধর্ষণ শুধু হৃদয়বিদারকই নয়, মনুষ্যত্বহীনতার এক ভয়ঙ্কর দৃষ্টান্ত।

লক্ষীপুর সদর উপজেলার ৭নং বসিকপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নুরুন নবীকে গত শুক্রবার সকালে স্থানীয় একটি চায়ের দোকানে গুলি করে ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সন্ত্রাসী আবুল কাশেম জেহাদী। লক্ষীপুরের কোনো হাসপাতালে নিরাপত্তার অভাবে নুরুন নবী বর্তমানে গুলিতে গুরুতর আহতাবস্থায় নোয়াখালীর একটি বেসরকারী হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। রিজভী এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।



সাম্প্রতিক খবর

জমজম বাংলাদেশের এক্সিকিউটিভ ডনর মেম্বার হলেন আলহাজ্ব এ এস মোহাম্মদ সিংকাপনী

photo লন্ডনবিডিনিউজ২৪ : আন্তর্জাতিক চ্যারিটি সংস্থা জমজম বাংলাদেশের এক্সিকিউটিভ ডনর মেম্বার হয়েছেন সাপ্তাহিক বাংলা পোষ্ট পত্রিকার সাবেক ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ,বিশিষ্ট সমাজসেবী ও পিকাডেলী মসজিদের প্রতিষ্ঠাতা সেক্রেটারী আলহাজ্ব এ এস মোহাম্মদ সিংকাপনী।তিনি সম্প্রতি বাংলাদেশ সফরকালে জমজম বাংলাদেশের সিলেটে শিক্ষা ও সমাজসেবামূলক কার্যক্রম দেখে সন্তুষ্ট হয়ে ১০ লাখ টাকা অনুদান

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment