আজ : ০১:০২, মে ২৬ , ২০২০, ১২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭
শিরোনাম :

কোনও চিঠি দেইনি, সময়ও চাইনি: ফখরুল


আপডেট:১০:১৪, এপ্রিল ৩০ , ২০১৯
photo

ঢাকা প্রতিবেদক: বিএনপি মহাসচিব ও বগুড়া-৬ আসনের নির্বাচিত সংসদ সদস্য মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, পত্রিকায় দেখলাম আমি নাকি শপথ নেয়ার জন্য সময় চেয়ে আবেদন করেছি। বিষয়টি সঠিক নয়। আমি কোনও আবেদনই করিনি।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, সরকারের সঙ্গে কোনও আপস কিংবা সমঝোতার যে কথা বলা হচ্ছে, সেটির প্রশ্নেই ওঠে না। সেটি যদি হতো, তবে কিছুদিন আগেও আমার নামে নতুন করে যে মামলা দেয়া হয়েছে সেটি নিশ্চয়ই হতো না। আমাদের কেন্দ্র থেকে শুরু করে তৃণমূলের নেতাদের বিনাবিচারে জেলে থাকতে হতো না।

বিএনপি মহাসচিব আরও বলেন, ন্যূনতম সুযোগ কাজে লাগাতেই সংসদে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। সংসদে, সংসদের বাইরে- সব জায়গায় প্রতিবাদের সুযোগ কাজে লাগাতে আমাদের এ সিদ্ধান্ত।

তিনি বলেন, আমরা সংসদে ও সংসদের বাইরে সরকারের সব অন্যায়ের প্রতিবাদ জানাব। আপনারা দেখেছেন, গতকাল শপথ নিয়েই আমাদের একজন এমপি (হারুন-উর রশিদ) সংসদে গিয়ে কথা বলেছেন, গণতন্ত্রের মা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানিয়েছেন। গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার দাবি জানিয়েছেন।

বিদেশিদের চাপে বিএনপি সংসদে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কিনা, এমন প্রশ্নে দলটির মহাসচিব বলেন- না, বিদেশিদের কাছ থেকে আমাদের ওপর কোনও চাপ নেই। আমরা তাদের সঙ্গে চলমান রাজনীতি নিয়ে নিয়মিত কথা বলছি। আমরা বিশ্ব রাজনীতি পর্যবেক্ষণ করছি। আঞ্চলিক রাজনীতি পর্যবেক্ষণ করছি।

সাংবাদিকতার নীতি বজায় রেখে সাংবাদিকদের বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশের আহ্বান জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, গতকাল একটি পত্রিকার সাংবাদিক আমাকে প্রশ্ন করেছে আমি সংসদে যাব কিনা? আমি সরাসরি তাকে না বলে দিয়েছি। অথচ পত্রিকাটি আজ লিখেছে- মির্জা ফখরুলের সংসদে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। আমি যদি শপথ না নিই সে ক্ষেত্রে কী হবে? আপনার সাংবাদিকতা কোথায় যাবে? তাই আপনাদের কাছে অনুরোধ- রিপোর্ট করার আগে ইথিকস বজায় রাখবেন। সঠিক সংবাদ প্রকাশ করবেন।



সাম্প্রতিক খবর

দিরাইয়ে শহীদ চৌধুরী ফাউন্ডেশনের ঈদ উপহার বিতরণ

photo লন্ডনবিডিনিউজ২৪ : ২৩মে ২০২০ শনিবার দিরাই উপজেলার তাডল ইউনিয়নের মরহুম শহীদ চৌধুরী ফানডেশনের উদ্যোগে তাডল,রামপুর,জালালপুর সহ কয়েক গ্রামের মহামারী করোনা ভাইরাসের কারনে কর্মহীন প্রায় তিন শতাদিক মানুষের মধ্যে ঈদ উপহার বিতরন করা হয়। ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা ও মরহুম আব্দুস আব্দুস শহীদ চৌধুরীর ছোট ভাই আকলাকুর রহমান চৌধুরী,আফরোজ মিয়া চৌধুরী উপস্হিত থেকে উপহার সামগ্রি বিতরন করেন।

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment