আজ : ০৭:৩২, জুন ৪ , ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭
শিরোনাম :

ব্রেক্সিট নিয়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ দাবি ব্রিটিশ এমপি রূপা হকের


আপডেট:০৩:৩৬, মার্চ ২৭ , ২০১৯
photo

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ব্রেক্সিট ইস্যু নিয়ে আলোচনার জন্য ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র সাক্ষাৎ দাবি করেছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ব্রিটিশ এমপি রূপা হক। গত সপ্তাহে এমপিদের কাছে পাঠানো এক চিঠি নিয়ে আলোচনার জন্য থেরেসা মে’র প্রতিশ্রুতি চেয়েছেন তিনি। ব্রিটিশ পার্লামেন্টের হাউস অব কমন্সে ব্রেক্সিট ইস্যু নিয়ে করণীয় ঠিক করতে চলমান বিতর্কে সোচ্চার এমপিদের মধ্যে রয়েছেন রূপা হক। এই সপ্তাহে ব্রেক্সিট ইস্যুতে ব্রিটিশ এমপিরা অনেকগুলো প্রস্তাবে ভোট দিতে যাচ্ছেন।

পশ্চিম লন্ডনের ইয়েলিং সেন্ট্রাল অ্যাকশন থেকে নির্বাচিত এমপি রূপা হক হাউস অব কমন্সে বলেন, আজ আমার আসনে যত সংখ্যক মানুষ আর্টিকেল ৫০ রহিত করতে একটি আবেদনে স্বাক্ষর করেছেন তত মানুষ গত নির্বাচনে কনজারভেটিভ পার্টিকে ভোটও দেননি। যদি তিনি (মে) সত্যিই চান তাহলে আমরা সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য আলোচনা করতে সাক্ষাৎ পেতে পারি। কারণ লন্ডনকে চিরতনে হারিয়ে যেতে দেওয়া যায় না। তা না হলে এটা মনে হবে যে তিনি সব সময় সেই পুরনো কথাগুলোই বারবার শুনছেন।

ব্রেক্সিট কঠিন রাজনৈতিক পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছেন থেরেসা মে। ব্রিটিশ পার্লামেন্টের এমপিরা ব্রেক্সিটের নিয়ন্ত্রণ নিজেদের হাতে নেওয়ার পক্ষে একটি প্রস্তাবে সমর্থন দিয়েছেন। ওই ভোটের পর তিনি জানিয়েছিলেন, ব্রেক্সিট নিয়ে এমপিদের সঙ্গে আলোচনার জন্য তিনি সব সময় প্রস্তুত আছেন।সোমবার অনুষ্ঠিত ভোটে থেরেসা মে’র দলের অনেক এমপিই তার প্রস্তাবিত ব্রেক্সিট বিলের বিরোধিতা করেছেন।

থেরেসার চুক্তির অন্তত ছয়টি বিকল্প নিয়ে আগামী কয়েক দিনে ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হতে পারে। এসব বিকল্পের মধ্যে রয়েছে: আর্টিকেল ৫০ বাতিল এবং ব্রেক্সিট বাতিল, আরেকটি গণভোট, প্রধানমন্ত্রীর চুক্তির পাশাপাশি একটি শুল্কঃবিভাগ প্রতিষ্ঠা এবং একক বাজারে প্রবেশাধিকার, কানাডা স্টাইলে একটি মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি এবং চুক্তি ছাড়াই ব্রেক্সিট বাস্তবায়ন।

এ সপ্তাহেই ইউরোপীয় নেতারা ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ২৯ মার্চের পরিবর্তে ১২ এপ্রিল যুক্তরাজ্যের বেরিয়ে যাওয়ার বিষয়ে সম্মত হয়। আগামী সপ্তাহে থেরেসার চুক্তি অনুমোদন পেলে ব্রেক্সিট কার্যকরের সময়সীমা ২২ মে পর্যন্ত বাড়াতে রাজি আছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। আর তা না হলে বা কোনও বিকল্প পরিকল্পনা বাস্তবায়ন না হলে আগামী ১২ এপ্রিল স্বয়ংক্রিয়ভাবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যাবে যুক্তরাজ্য।



সাম্প্রতিক খবর

প্রবাসী বাংলাদেশীদের নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রতিবাদ ও নিন্দা : প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদানের সিদ্ধান্ত

লন্ডনবিড়িনিউজ২৪ঃবিশেষ প্রতিনিধি: গত ৩১শে মে রবিবার ভারচুয়াল মিডিয়া ঝুমের মাধ্যমে লণ্ডনে অনুষ্ঠিত সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দের এক জরুরী প্রতিবাদ সভায় সম্প্রতি প্রবাসী বাংলাদেশী সম্পর্কে বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রীর অশালীন মন্তব্য করার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানানো হয় ।সভায় বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী বরাবরে একটি প্রতিবাদ লিপি প্রেরণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিশিষ্ট

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment