আজ : ০৫:২১, ডিসেম্বর ৯ , ২০১৯, ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬
শিরোনাম :

ব্রিটেনে ইসলামিক বিয়ে কতটুকু বৈধ ( ভিডিও )


আপডেট:১২:২৪, মার্চ ২১ , ২০১৬
photo

লন্ডনবিডিনিউজ২৪: ব্রিটেনে বসবাসকারী মুসলিমদের মধ্যে ইসলামিক বিয়ে ব্রিটিশ আইনে মোটেও বৈধ নয়। এই বিয়ের মাধ্যমে ধর্মীয় রীতিনীতি মেনে একজন পুরুষ একজন মহিলার সাথে বসবাস করলেও ব্রিটিশ আইনে একে লিভ টু গেদার হিসেবে গণ্য হয়ে থাকে। তাই ইসলামিক বিয়ের পাশাপাশি নিজের অধিকার সুপ্রতিষ্ঠিত করতে ইংলিশ ম্যারেইজ বা রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করার পরামর্শ দিয়েছেন বিশিষ্ট আইনজীবি ব্লাকস্টোন সলিসিটার্স এর প্রিন্সিপাল ব্যারিস্টার মোহাম্মদ খালেদ নূর।

লন্ডন বিডিনিউজের সাথে আলাপ কালে তিনি জানিয়েছেন, ব্রিটেনের আইনে ইসলামিক বিয়ে আইনত কোন বৈধতা নেই। ফলে কোন সময় যদি স্বামী-স্ত্রীরির মধ্যে ডিভোর্স হয় তখন নিজের অধিকার থেকে উভয়ই বঞ্চিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। অনেক সময় ইংলিশ ম্যারেইজ না থাকায় স্ত্রী তার প্রাপ্য সম্পত্তির অধিকার থেকে, স্বামী অনেক সময় সন্তানের দাবী থেকেও বঞ্চিত হয়ে থাকেন। তাই তিনি ইসলামিক বিয়ের পাশাপাশি যত দ্রুত সম্ভব ইংলিশ ম্যারেইজ সম্পন্ন করার তাগিদ দিয়েছেন।
পাশাপাশি যারা অবৈধভাবে ব্রিটেনে বসবাস করছেন, অথচ ইসলামিকভাবে কোন ব্রিটিশ পুরুষ অথবা মহিলাকে বিয়ে করেছেন তাদের ক্ষেত্রে অতি গুরুত্বপুর্ণ হচ্ছে ইংলিশ ম্যারেইজ সম্পন্ন করা। কারন ইংলিশ ম্যারেইজ না করে কেউ যদি ইসলামিক বিয়ের মাধ্যমে বসবাস করে তবে একে ব্রিটিশ আইনে লিভ টু গেদার হিসেবে গণ্য করবে। এভাবে যদি দুই বছরের উর্ধ্বে কেউ বসবাস করেন তখন তিনি হয়ত পাটনার দেখিয়ে বৈধতা পেতে পারেন। সেক্ষেত্রে অনেক শর্ত যুক্ত রায়েছে।
বিস্তারিত শুনুন ভিডিওতে--



সাম্প্রতিক খবর

সাউন্ডটেক ক্যারাম ক্লাব ইউকে’র পুরুস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান

photo লন্ডনবিডিনিউজ২৪ঃ গত ৫ ডিসেম্বর বৃহস্প্রতিবার সন্ধ্যায় পূর্ব লন্ডনে সাউন্ডটেক ক্যারাম ক্লাব ইউকে’র স্থায়ী কার্যালয়ে বরাবরের মতো এবার বিপুল সংখক দর্শকদের উপস্থিতিতে ব্রিটেনের জনপ্রিয় ও প্রাচীন ক্যারাম ক্লাব “সাউন্ডটেক ক্যারাম ক্লাব ইউকে’র ডাবুল চ্যাম্পিয়ন ট্রপি ২০১৯” এর ফাইনাল খেলা ও পুরুস্কার বিতরণী অনুষ্টান অনুষ্ঠিত হয় l অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট কমিনিটি

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment