আজ : ০১:১৩, অগাস্ট ২৫ , ২০১৯, ১০ ভাদ্র, ১৪২৬
শিরোনাম :

দ্বিতীয়বার শপথ নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি


আপডেট:০৫:০৪, মে ৩০ , ২০১৯
photo

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: দ্বিতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন নরেন্দ্র মোদি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তারকাখচিত অনুষ্ঠানে তাকে শপথবাক্য পাঠ করান রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। নতুন মন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করে রাষ্ট্রপতি ভবনে আসেন মোদি। তার আগেই পৌঁছে যান বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। একে একে নির্দিষ্ট আসনে বসেন নতুন মন্ত্রীরা। মোদির পরেই শপথ নেন রাজনাথ সিং। তারপরেই অমিত শাহ। এরপর একে একে শপথ নেন অন্যান্য মন্ত্রীরা।

শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চার দেশের প্রেসিডেন্ট, তিনজন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ আবদুল হামিদ, শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মৈত্রীপালা সিরিসেনা, কিরঘিজস্তানের প্রেসিডেন্ট সুরুনবে জিনবেকভ এবং মায়নমারের প্রেসিডেন্ট ইউ উইন মিয়ান্ট। মরিশাসের প্রধানমন্ত্রী প্রবিন্দকুমার জগনাথ, নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলি এবং ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং। তাইল্যান্ডের বিশেষ দূত গ্রিসান্ডা বুনরাচ তার দেশের প্রতিনিধিত্ব করেন।

আরও উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধি ও কংগ্রেস নেত্রী সনিয়া গন্ধিও। ছিলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রতিভা পাতিল ও প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। ছিলেন বলিউডের এক ঝাঁক তারকা।

আমন্ত্রিত মুখ্যমন্ত্রীদের মধ্যে ছিলেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, নবীন পট্টনায়ক, পিনরাই বিজয়ন, কে চন্দ্রশেখর রাও, জগন্মোহন রেড্ডি, ভূপেশ বাঘেল। রাষ্ট্রপতিভবনের প্রাঙ্গণে ২০১৪ সালে যখন মোদি শপথ নিয়েছিলেন, তখন অতিথি ছিলেন ৩৫০০ জন। এবার আমন্ত্রিত ৮ হাজার। এর আগে দরবার হলের বদলে খোলা প্রাঙ্গণে শপথ নিয়েছিলেন অটলবিহারী বাজপেয়ী এবং চন্দ্রশেখর।



সাম্প্রতিক খবর

সিলেটে তিন প্রবাসী যুবকের উপর হামলার প্রতিবাদে ভয়েস ফর জাস্টিস ইউকের সভা

photo বিশেষ প্রতিনিধিঃ সিলেটের জিন্দাবাজারে তিনজন বৃটিশ বাংলাদেশী যূবকের উপর হামলা ও অত্যাচারের প্রতিবাদে গত ১০ আগস্ট শনিবার 'ভয়েস ফর জাস্টিস ইউকে' পুর্ব লন্ডনের একটি কমিউনিটি হলে এক জরুরী প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে। আমির উদ্দিন আহমদ মাস্টারের সভাপতিত্বে ও সাংবাদিক কে এম আবুতাহের চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত সভায় এ ন্যক্কারজনক হামলার তীরে প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে বক্তব্য

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment