আজ : ০৬:১০, ডিসেম্বর ৯ , ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬
শিরোনাম :

ঐক্যফ্রন্টের দুই প্রার্থী শপথ নিলে ব্যবস্থা: ড. মোশাররফ


আপডেট:০৯:১২, মার্চ ৩ , ২০১৯
photo

ঢাকা প্রতিবেদক: জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শরিক গণফোরামের দুই প্রার্থী শপথ নিলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। আজ রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যানে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের নবগঠিত আহবায়ক কমিটিকে নিয়ে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান তিনি।

মোশারররফ হোসেন বলেন, আমাদের ঐক্যফ্রন্টের সিদ্ধান্ত ছিলো, আমরা যেহেতু এই নির্বাচনকে প্রত্যাখ্যান করেছি, অতএব বিএনপি এবং ঐক্যফ্রন্টের যারা নির্বাচিত হয়েছেন আমাদের কেউ সংসদে যাবে না। এটা বিএনপি এবং ঐক্যফ্রন্টের সিদ্ধান্ত ছিল। এখন ঐক্যফ্রন্ট দু’জন সংসদে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এটা তাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার। আমাদের জানা মতে ঐক্যফ্রন্টের সিদ্ধান্ত না যাওয়ার পক্ষে। এটা নিয়ে আমাদের কোন মতামত নেই।

গণফোরাম তাদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবে। এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপির এই নেতা বলেন, আমরা শুনেছি তারা সংসদে অংশগ্রহণ করবে। তখন আমরা আমাদের যে বিধিবিধান আছে এবং ঐক্যফ্রন্টের যে সিদ্ধান্ত আছে সেই প্রেক্ষাপটে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

গণফোরামের দুই প্রার্থীর শপথ নিলে বিএনপিতে কোনো টানাপোড়েন হবে কিনা জানতে চাইলে মোশাররফ হোসেন বলেন, এটা এতো আগে বলা যাবে না। আমরা একটা বড় টার্গেট করে ঐক্যফ্রন্ট করেছি। বাংলাদেশের জাতীয়তাবাদী দল এটার প্রধান এবং বৃহত্তর। অতএব এ ব্যপারে আমি বিশ্বাস করি, যদি কেউ সংসদে যায় ঐক্যফ্রন্টের কোনো ক্ষতি হবে না।’

গ্যাসের দাম বৃদ্ধির জন্য সরকার পদক্ষেপ নিচ্ছেন জানিয়ে বিএনপির এই নেতা বলেন, গ্যাসের দাম কয়েকগুণ বৃদ্ধি করে সরকার যে অবস্থায় রেখেছে, আবার যদি বৃদ্ধি করে তাহলে এটা মরার ওপর খড়ার ঘাঁ হবে। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাই।

উপজেলা নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আগামী ৫ম উপজেলা নির্বাচনে হবে, আমরা শুনতে পাচ্ছি এখানে নির্বাচন কমিশন ৯ কোটি টাকা ওপরে বাজেট করেছে। এর আগে উপজেলা নির্বাচনে ৪ কোটি টাকার ওপরে বাজেট ছিলো। আমরা বলতে চাই, একাদশ জাতীয় নির্বাচন দেখে জনগণের ভোটের প্রতি যে অনাস্থা সৃষ্টি হয়েছে, তাতে জনগণ আর এই সরকারের প্রতি আস্থা রাখে না। তাই বিএনপি এই নির্বাচনকে বয়কট করেছে।

তিনি বলেন, নৌকায় যারা নমিনেশন পাবে তারাই নির্বাচিত। এখানে তো ভোটের প্রয়োজন হয় না। তাই আমি মনে করি, নতুন করে জনগণের ৯ কোটি টাকা খরচ করার প্রয়োজন নাই। তাই জনগণের এই টাকা অযথা ব্যয় না করবার জন্য সরকার এবং নির্বাচন কমিশনের কাছে আহবান জানাবো। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আরও বলেন, যেহেতু নৌকা ছাড়া কোনো প্রার্থী নাই, সেহেতু নৌকার প্রার্থীকে ঘোষণা করে দিলেই নির্বাচনের নাটক শেষ হয়ে যায়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, নবগঠিত কমিটির আহবায়ক ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, যুগ্ম-আহ্বায়ক তকদির হোসেন মো. জসিম, সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী, মো. নাজিমুদ্দিন মাষ্টার, সদস্য সচিব কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিন, শ্রমিকদলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, তাঁতীদলের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম, কৃষকদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য জিয়াউল হায়দার পলাশ, এস কে সাদী, মো. মাইনুল ইসলাম, নাসির হাজারী, হাজী সাখাওয়াত হোসেন নান্নু, মো. আলিম হোসেন, সেলিম হোসেন, সাখাওয়াত হোসেন নান্নু, মোজাম্মেল হক মিন্টু, মিয়া মো. আনোয়ার, কৃষিবিদ মিজানুর রহমান লিটু, বায়েজিদ বোস্তামী, কৃষিবিদ মেহেদী হাসান পলাশ, কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন, এম জাহাঙ্গীর আলম, ছাত্রদলের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সাত্তার পাটোয়ারী প্রমুখ।এছাড়া ফুলদান কর্মসূচিতে যোগ দেন কৃষকদল, ছাত্রদল, শ্রমিকদল, ওলামাদল, মৎসজীবীসহ অঙ্গদলের নেতাকর্মীরা।



সাম্প্রতিক খবর

সাউন্ডটেক ক্যারাম ক্লাব ইউকে’র পুরুস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান

photo লন্ডনবিডিনিউজ২৪ঃ গত ৫ ডিসেম্বর বৃহস্প্রতিবার সন্ধ্যায় পূর্ব লন্ডনে সাউন্ডটেক ক্যারাম ক্লাব ইউকে’র স্থায়ী কার্যালয়ে বরাবরের মতো এবার বিপুল সংখক দর্শকদের উপস্থিতিতে ব্রিটেনের জনপ্রিয় ও প্রাচীন ক্যারাম ক্লাব “সাউন্ডটেক ক্যারাম ক্লাব ইউকে’র ডাবুল চ্যাম্পিয়ন ট্রপি ২০১৯” এর ফাইনাল খেলা ও পুরুস্কার বিতরণী অনুষ্টান অনুষ্ঠিত হয় l অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট কমিনিটি

বিস্তারিত

0 Comments

Add new comment